বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
তাবলীগের শুরু যমানা থেকেই এই কাজের নেগরান ছিলেন, হযরত ওলামায়ে কেরাম ওলামায়ে কেরাম এর দোষ তালাশ করার ভয়াবহ পরিনতি একটি ভিত্তিহীন কথা, “যারা দাওয়াতের কাজ করবে তাদের ইলম না থাকলেও আল্লাহ নিজ ইলম থেকে তাদের ইলম দেবেন” সরকার ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক করেছে, একজন মুমিনের উচিত এর ভিতরেও নিজের আখেরাতের কিছু ফিকির করা। বুরকিনা ফাসোতে শুরায়ী নেজামের অধিনে শেষ হলো পুরনোদের জোড় শুরায়ী নেজামের অধিনে চলছে গিনি বিসাউ ইজতেমা অতিসম্প্রতি চলে গেলেন দারুল উলূম দেওবন্দের কয়েকজন ওস্তাদ আল্লামা আব্দুল খালেক সাম্ভলী (রহ) এর জানাজা রাত ১১ টায় শুরায়ী নেজামের মারকাযের সাথে যারা আছে এরা কি আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত থেকে বেরহয়ে গেছে ? মাওলানা সাদ সাহেবের দলীলবিহীন গায়বী কথা বলা ও বিদআত আবিষ্কার করা তাবলীগ জামাতের বর্তমান সংকট এর অন্যতম একটি কারন।
ওলামায়ে কেরাম এর দোষ তালাশ করার ভয়াবহ পরিনতি

ওলামায়ে কেরাম এর দোষ তালাশ করার ভয়াবহ পরিনতি

হযরতজী মাওলানা ইলিয়াস রহমাতুল্লাহ এর কাছে কেউ স্বীকায়েত করলেন যে মোকামি ওলামারা কাজের মধ্যে কোন গুরুত্ব দিচ্ছে না,
জবাবে মাওলানা খুবই রাগান্বিত হয়ে বললেন ওলামাদের ব্যাপারে শিকায়াত করা থেকে বেঁচে থাকো নইলে তোমাদের ঈমান ছাড়াই মৃত্যু হবে (মাজালিসে আবরার)

মাওলানা ওমর সাহেব পালনপুরী রহমাতুল্লাহ আলাইহি বলতেন, জীবনে কখনো কোন আলেমের পিছনে খারাবি বর্ণনা করবে না এবং কোন আলেমের ভিতরের দোশ বর্ণনা করবে না,,,, যদি তোমরা কোন আলেমের দোষ খুঁজতে থাকো এবং তার ইলম কে ছোট ভাবো তো আল্লাহ তোমাদের ১০ পিঁড়িতে (১০ প্রজন্মের ভিতর) কোন আলেম তৈরি করবে না।
استغفر اللہ
আল্লাহ আমাদের সকলকে হেফাজত করুক।
ওলামা কেরাম দের লাঞ্ছিত করার ফলাফল-,,,,,

(১) হযরত হাসান বছরী রহমতুল্লাহি বর্ণনা করেন যদি উলামা হযরত না থাকতেন তাহলে সাধারন মানুষ বড় বড় মোষ এর মত জীবন যাপন করত।

(২) শাহ আব্দুল আযীয মুহাদ্দিস দেহলভী রহমতুল্লাহি আলাইহি লিখেছেন ওলামায়ে কেরামদের অপমানিত কুফর।

(৩) মাওলানা গঙ্গুহী রহমতুল্লাহি বলেছেন যারা ওলামায়ে কেরামদের অপমান করে তাদের কবর খুলে দেখো তাদের মুখ কেবলা থেকে ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

(5) হযরত হাসান বসরী রহমাতুল্লাহ আলাইহ বলেন ওলামা কেরাম দের উদাহরণ আকাশের নক্ষত্রের মতো যার আলোয় মানুষ নিজের গন্তব্য স্থল বেছে নেয় যখন লুকিয়ে যায় লোক হয়রান হয়ে যায় ।
আলেমের মউত ইসলামের মধ্যে এই রকম ক্ষতি যেটা কিয়ামত পর্যন্ত পুরো হয় না (তাম্বীহুল গাফেলীন)

(৫) উলামা হযরত নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর ও আরিসিন যে তাদের কষ্ট দিলো সে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি সাল্লাম কে কষ্ট দিল (মাফহূমে হাদিস)

(৬) যদি ওলামাকেরাম আল্লাহতালার দোস্ত না হয় দুনিয়ার মধ্যে কেউ আল্লাহতালার দোস্ত নয়(হযরত সাইয়েদ রিফাই রঃ/অসায়া আম্বিয়া আওলীয়া 2/102)

(৭) আল্লাহ যেহেতু নিজেই আলিম তাই ওলামাদের সাথে বন্ধুত্ব রাখেন (ইমাম গাজ্জালী আহ্যাউলু উলুম)

(৮)ইসলামী বন্ধুদের জন্য অপরিহার্য তারা যেন ইসলামকে শক্তিশালী বানায় ওলামা মাশায়েখ গন্ দের শ্রদ্ধা করে ,তাদের সাথে বন্ধুত্ব করে, অত্যাচারীদেরকে শেষ করে -দেশে ইনসাফের রাস্তা তৈরি করে , যাতে দেশবাসী দেশের মধ্যে শান্তশিষ্ট তার সাথে জীবন যাপন করতে পারে। (শেখ আব্দুল কুদ্দুস গঙ্গুহী রহঃ )

(৯) ইলমের ব্যাপারে কার্পণ্যতা না করার দরকার
আলিম এর সাথে সবসময় যোগাযোগ রাখার দরকার (হযরত আলী সানি হযরত সাইয়েদ আলি হামদানি ওরাহমাতুল্লাহ)

(১০) আমার পুত্র সর্বদা আলিম এবং ফাজিল সাহেবগণের সাথে ওঠাবসা করবে মূর্খদের সাথে থাকবে না এটাই জ্ঞানীদের চিহ্ন(সুলতান আওরঙ্গজেব আলমগীর রহমাতুল্লাহ আলাইহি)

ওলামায়ে কিরাম যদি না হতো ভারতবর্ষে দিন শেষ হয়ে যেত,,,,,,

(১১) মসজিদগুলো হেদায়াতের বাজার ওলামা একরাম সেই বাজারের দোকানদার এবং দোকান তাদের বুকের ছাতি কোরআন সেই দোকানের মাল মুসলমান খরিদার ইমান হলো পুঁজি যারা খালিস নিয়ে তে তাদের কাছে ঈমান কিনতে আসে কখনো খালি হাতে ফিরে যায় না।(হযরত মাওলানা লাহোরী রহমাতুল্লাহ)

(১২) নবুয়তের দরজা বন্ধ হয়ে গেছে কিন্তু ওলামা একরাম নবুওয়াতের সেই দায়িত্ব ওঠানোর জন্য আজও পর্যন্ত আমাদের মধ্যে আছেন কেয়ামত পর্যন্ত থাকবেন তাদের সান্নিধ্যে থেকে নিজেদেরকে সংশোধন করে নেওয়ার দরকার(মর্দে মুমিন 130 নম্বর পৃষ্ঠা, আকোয়ালে সাফ5 নম্বর খন্ড 152 নম্বর পৃষ্ঠা)

(১৩) তোমরা বলো যে এই সমস্ত মোল্লারা বেইমান যদি এই মৌলভীরা শুকনো রুটি খেয়ে কোরআন সীনাবদ্ধ না করত হিন্দুস্তানে ইসলামের কোন নিশানায় থাকত না(হযরত লজপুরি রহমাতুল্লাহ আলাইহি)

যাও ইতিহাসের পৃষ্ঠা উল্টে দেখো সমস্ত ত‍্যগ আমাদেরই আছে হিন্দুস্তান এখন আমাদের সামনে শুধুমাত্র ওলামাদের তাজা খুনের বদৌলতেই আমরা পেয়েছি।

ইলমে দ্বীন অর্জন করো
(১৪) বেটা শরীয়তের জ্ঞান থেকে দূরে সরে জেও না ইলমে ফিকা পড়ে আলিম হও,,(সাইয়েদেনা হযরত আব্দুল কাদির জিলানী রঃ)

(১৫) খলিফা আব্দুল মালিক ইবনে মারওয়ান এর অসিয়াত নিজের ছেলের জন্য:-আলেম হও কেননা যদি তুমি সম্পদ শিল হও ইলম তোমার জন্য সৌন্দর্য হবে আর যদি গরিব হও তো ইলম তোমার জন্য সম্পদ হবে।(আল ইলমুওল উলামা)

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আর-রাহা সেবাই আমাদের ধর্ম।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,৫৬৬,৯০৭
সুস্থ
১,৫৩০,০৮৩
মৃত্যু
২৭,৮০১
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২৪৩
সুস্থ
৫৩৪
মৃত্যু
১০
স্পন্সর: একতা হোস্ট



©Copyright 2021 Sathivai.com
Desing & Developed BY sayem mahamud